বিনোদন

ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খানের তৃতীয়বারের মতো বিয়ের পিঁড়িতে বসার গুঞ্জন ওঠে কিছুদিন থেকে। চিকিৎসক পাত্রীর সঙ্গে বিয়ে দেওয়ার ইচ্ছা শাকিবের পরিবারের। এরপর থেকেই শাকিবের তৃতীয় বিয়ের হবু পাত্রী হিসেবে মিষ্টি জান্নাতের নাম চাউর হয় মিডিয়া পাড়ায়।

এই গুঞ্জনের কারণ হচ্ছে, ঢাকাই সিনেমার একজনই চিত্রনায়িকার পাশাপাশি চিকিৎসক মিষ্টি জান্নাত।

বিষয়টি নিয়ে সম্প্রতি গণমাধ্যমে কথা বলেছেন মিষ্টি জান্নাত। যেখানে শাকিবের সঙ্গে বিয়ের খবর সরাসরি ‘অস্বীকার’ না করলেও গুঞ্জন হিসেবেই রাখতে চেয়েছেন তিনি।

এরপর থেকে শুরু হয় নানা আলোচনা সমালোচনা। পাশাপাশি মিষ্টি জান্নাতের চরিত্র নিয়েও নানা প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে। একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে প্রেমেরও গুঞ্জন উঠে এই অভিনেত্রীকে নিয়ে। এসব গুঞ্জনের খোলামেলা জবাব দিয়েছেন এই অভিনেত্রী।

মিষ্টি জান্নাত বলেন, আমার সঙ্গে ‘গিভ অ্যান্ড টেক’ করতে হলে সমপর্যায়ে আসতে হবে। সমপর্যায়ে তো নেই। দুই লাখ পাঁচ লাখ টাকা দিয়ে আমার সঙ্গে থাকা যাবে না। এ ধরনের প্রস্তাব তো সবাই দেয়। শুধু কী মিডিয়ায় দেওয়া হয় এমনটি নয়, মেডিকেলের স্যারও অফার দিয়েছিল। আমি রাজি হইনি। এর শাস্তি হিসেবে ৫ বছরের কোর্স লেগেছে ৮ বছর। আমাকে আমার শিক্ষক অশ্লীল ভিডিও দেখিয়েছিল। কিন্তু আমি রাজি হইনি।

এই অভিনেত্রী মনে করেন, এ ধরনের প্রস্তাব শুধু মিডিয়ায় দেওয়া হয়নি। বর্তমানে ৫-১০টাকার চাকরিতে গেলেও অফার করে। স্যারকে খুশি করতে হবে। কিন্তু দোষ হয় শুধু মিডিয়ার। এটার কারণ হচ্ছে, মিডিয়ার দিকে সবার নজর থাকে।

এতোদিন কেন বিয়ে করেননি এমন প্রশ্নের জবাবে মিষ্টি জান্নাত বলেন, সমপর্যায়ে তো পেতে হবে। সমপর্যায়ে কাওকে পাইনি এজন্য বিয়ে করা হয়নি। পেলে বিয়ে করে ফেলব।

তিনি বলেন, আমাকে বাদ দেওয়ার সুযোগ নেই। আমি মানুষকে রিজেক্ট করেছি। এমনো হয়েছে সিনেমায় চুক্তি করেছি, আমার পছন্দ হয়নি এক লাখ টাকার বান্ডিল ফেরত দিয়ে এসেছি। আমি এ ধরনের মেয়ে।

বিনোদন

তিনটি ফ্লপ সিনেমার পর চার নম্বরটি হলো সুপারহিট, সঙ্গে ন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড! নায়িকা রূপা মির্জা এখন টক অব দ্য শোবিজ।

এই সাকসেস সেলিব্রেট করতে একটা পার্টি থ্রো করেন রূপা।

আলোকোজ্জ্বল জাঁকালো ওই পার্টিতে শূন্য থেকে শিখরে ওঠা রূপা মির্জার অন্ধকার অতীত সামনে চলে আসে । আপন, পর, শত্রু, মিত্র, মুখ ও মুখোশ সব যেন এক গোলক ধাঁধা! পুরোনো ক্ষত, পাপ কিংবা লোভের গল্পে রাত বাড়তে থাকে আর বাড়তে থাকে লাশের সংখ্যা!
এমন গল্পে নির্মিত হয়েছে নতুন একটি ওয়েব ফিল্ম ‘পয়জন’। এটি নির্মাণ করেছেন সঞ্জয় সমাদ্দার। প্রধান চরিত্রে তানজিন তিশাকে নিয়ে মাস কয়েক আগে শুটিং হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) এল ৪৩ সেকেন্ডের সেই টিজার। যেখানে পাওয়া গেছে গল্পের একটা ধারণা। তবে টিজারটিতে ১৮+ লিখে মার্ক করে দেওয়া হয়েছে এটি প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য।

পরিচালক সঞ্জয় সমদ্দার বলেন, প্রয়োজনের অতিরিক্ত যে কোনো কিছু বিষ! কিন্তু জীবনের এমনই আয়রনি যে, প্রয়োজনীয়তার সীমা আমরা প্রায়শই নির্ধারণ করতে পারি না। সেখান থেকেই জন্ম নেয় বেঁচে থাকার নানা সমীকরণ। পরিশ্রম, মেধা, কিংবা প্রতারণা নানাভাবে জীবনের সেই সমীকরণ মেলানোর চেষ্টা চলে কিন্তু জীবনের গল্প তো আসলে লেখে অন্য কেউ।

ওয়েব ফিল্মটিতে তানজিন তিশা ছাড়াও আরো অভিনয় করেছেন আবু হুরায়রা তানভীর, টাইগার রবি, রওনক রিপন, আব্দুল্লাহ আল সেন্টু, এ কে আজাদ সেতু, এস এম সোহাগ প্রমুখ।

বিনোদন

ভারতীয় বাংলা সিনেমার জনপ্রিয় জুটি প্রসেনজিৎ ও ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। ১৯৯৪ সালে মুক্তি পায় এই জুটির প্রথম চলচ্চিত্র ‘নাগপঞ্চমী’।

তারপর অনেক জনপ্রিয় বাংলা সিনেমা উপহার দিয়েছেন রোমান্টিক এই জুটি।
২০০২ সালে এই জুটির অভিনীত ‘প্রতিহিংসা’ সিনেমা মুক্তি পায়। তারপর সময়ের সঙ্গে অনেক কিছুই বদলে যায়। মাঝে ১৪ বছর একসঙ্গে কোনো সিনেমায় দেখা যায়নি তাদের।

দীর্ঘ ১৪ বছরের বিরতি ভেঙে ‘প্রাক্তন’ সিনেমার মাধ্যমে একসঙ্গে ফেরেন তারা। নন্দিতা রায় ও শিবপ্রসাদ মুখার্জি পরিচালিত এ সিনেমাটি ২০১৬ সালের ২৭ মে মুক্তি পায়। এ সিনেমা মুক্তির পর ভূয়সী প্রশংসা কুড়ান তারা। ‘প্রাক্তন’ মুক্তির পর আরও দুটো সিনেমায় একসঙ্গে অভিনয় করেন প্রসেনজিৎ-ঋতুপর্ণা।

ভারতীয় বাংলা সিনেমাপ্রেমীদের কাছে প্রসেনজিৎ-ঋতুপর্ণা জুটির দর্শকপ্রিয়তা আকাশচুম্বী। দীর্ঘ দিনের গুঞ্জন, ব্যক্তিগত জীবনে এ জুটি প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন। সত্যি কী প্রসেনজিৎ-ঋতুপর্ণার মাঝে প্রেম ছিল বা আছে? এবার ভারতীয় একটি গণমাধ্যমে এই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন তারকা জুটি।

প্রথমে এ প্রশ্নের উত্তর দেন প্রসেনজিৎ। তিনি বলেন, আপনি বলতে পারবেন, উত্তম-সুচিত্রার কি প্রেম ছিল? কিছু জিনিস অজানা থাকুক। যখন আমরা থাকব না, তখনো যাতে এই আলোচনাটা চলে।

একই প্রশ্নের জবাবে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত বলেন, পরবর্তী প্রজন্মে যেন এটাই হাতড়ে যায়, ওদের মধ্যে কী ছিল!

ঋতুপর্ণার এ বক্তব্যের পর প্রসেনজিৎ বলেন, আসলে কিছু সম্পর্ক বিশ্লেষণের বাইরে; সেটাকে ওরকমভাবেই রাখা ভালো।

প্রসেনজিৎ-ঋতুপর্ণা দীর্ঘ অভিনয় ক্যারিয়ারে আলাদা আলাদাভাবে অসংখ্য সিনেমায় অভিনয় করেছেন। তার মধ্যে ৫০টি সিনেমায় জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন তারা। এরই মধ্যে ৪৯টি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। তাদের আসন্ন অর্থাৎ পঞ্চাশতম সিনেমা ‘অযোগ্য’ শিগগিরই মুক্তি পাবে এটি।

বিনোদন

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির (২০২৪-২৬) নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর ফুলের মালা দিয়ে নতুন কমিটিকে বরণ করে নিয়েছিলেন পরাজিত প্রার্থী নিপুণ আক্তার। এক মাস পর এ কমিটি বাতিল চাওয়ার পেছনে বড় শক্তি আছে বলে মনে করেন ডিপজল।

ডিপজল বলেন, এর পেছনে অবশ্যই বড় কোনো শক্তি আছে। যেহেতু দেশের বাইরে থেকে নিপুণ এসব করছে, সেহেতু বুঝতে হবে তার পেছনের হাত লম্বা।

নির্বাচনে সম্পাদক পদে বিজয়ী ডিপজল তার পদে বসতে পারবেন না বলে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে পরাজিত সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী নিপুণ আক্তারের অভিযোগ তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

নিপুণের রিটের পরিপ্রেক্ষিতে সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদটিতে স্থগিতাদেশ দিয়েছেন আদালত। ফলে আপাতত ডিপজল এ পদে দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না।

সোমবার (২০ মে) বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি কাজী জিনাত হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। একইসঙ্গে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে অনিয়ম ও কারচুপির ঘটনা তদন্তের জন্য সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

হাইকোর্টের আদেশের পর মনোয়ার হোসেন ডিপজল বলেন, আমি বরাবরই আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। হাইকোর্ট যেহেতু রায় দিয়েছেন এখানে কিছু বলার নাই। তবে বিষয়টি নিয়ে আমাদের কমিটির সঙ্গে আলোচনা করে দুই-এক দিনের মধ্যে আমরা চেম্বার জজ আদালতে যাব।

নিপুণের এমন আচরণ নিয়ে সিনিয়র শিল্পীদের সঙ্গে কথা বলেছেন ডিপজল। তারাও এ বিষয়টি নিয়ে বিরক্ত বলে জানান তিনি।

ডিপজল বলেন, সোহেল রানা ভাইসহ বেশ কয়েকজন সিনিয়র শিল্পীর সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। তারাও বিষয়টি নিয়ে বিরক্ত। এ দুই বছরে যে নোংরামি হয়েছে, এর আগে এমন নজির নেই। বাংলাদেশের ফিল্মের মানুষ এমনটা করতে পারেন না।

বিনোদন

ফ্রান্সের সমুদ্র তীরবর্তী শহর কানে বসেছে ৭৭তম উৎসব। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শিল্পী-কুশলীদের নিয়ে পদচারণায় আয়োজনটি এরই মধ্যে জমে উঠেছে।

কয়েক দিন আগেই জানা গিয়েছিল আবারের আসরে হাজির হয়েছেন বাংলাদেশি মেয়ে ও সাবেক মিস আয়ারল্যান্ড মাকসুদা আখতার প্রিয়তী। এবারই প্রথম নয়, গত কয়েক বছর ধরে নিয়মিত কান উৎসবে অংশ নিচ্ছেন প্রিয়তি।

এবার কান সফরটা তার জন্য একটু বিশেষ। কেননা তিনি এখন অন্তঃসত্ত্বা। বেবিবাম্প নিয়েই হেঁটেছেন কানের মর্যাদাপূর্ণ লাল গালিচায়। এর ফাঁকে কথা বলেছেন বাংলাদেশি সাংবাদিক জনি হকের সঙ্গে।

এ সময় কান উৎসবের অভিজ্ঞতা নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি খুব এক্সাইটেড ছিলাম, কারণ আমার অনাগত সন্তানকে নিয়ে রেড কার্পেটে হাঁটব। এজন্য সচেতন থেকেছি, নিজেকে ফিট রেখেছি। ফিট থেকেই কানে অংশ নিতে চেয়েছিলাম। সেই সঙ্গে চেয়েছি, কান থেকেই আমার মাতৃত্বের খবরটি যেন সবাই জানে। সেটাই হলো, এজন্য বেশ আনন্দিত।’

প্রিয়তী জানান, ‘লাল গালিচায় হাঁটার জন্যই কানে আসতে চান নাকি উৎসবটির অভিজ্ঞতা নিতে, আগে সেটা ভাবতে হবে। কারণ কান উৎসবের যে বিশালতা, সেটা বুঝতে বুঝতেই দুই-তিনবার এখানে আসতে হবে। আর এখানে আসার অভিজ্ঞতা অসাধারণ। কারণ পুরো বিশ্বের সিনেমা অঙ্গনের মানুষেরা একত্রিত হন। কেউ যদি শুধু লাল গালিচায় হাঁটার জন্যই আসতে চান, তাহলে কিছু বলতে পারব না। তবে কানের অভিজ্ঞতা নেওয়ার জন্য আমি সবাইকে আহ্বান জানাই।’

নিজের অভিজ্ঞতার ঝুঁলি থেকে প্রিয়তী বললেন, আমি যখন প্রথম কানে এসেছিলাম, তখনই কিন্তু রেড কার্পেটে হাঁটিনি। এসেছিলাম উৎসবটির বিভিন্ন দিক বোঝার জন্য, শেখার জন্য। আমি চলচ্চিত্রপ্রেমী, আয়ারল্যান্ডের সিনেমা ও বিভিন্ন উৎসবের সঙ্গে যুক্ত। তো সিনেমার প্রতি আমার ভালোবাসা আছে। সেই জায়গা থেকেই এখানে আসি এবং আস্তে আস্তে মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ তৈরি করি। এরপর যখন আমার একটা পরিচিতি আসে, তখনই আমি লাল গালিচায় হাঁটা শুরু করেছি।’

প্রিয়তি স্থায়ীভাবে বসবাস করেন আয়ারল্যান্ডে। সেখানকার সিনেমা ও মডেলিং জগতে কাজ করেন তিনি। সেই সুবাদেই কানে ছুটে যান প্রতি বছর।

বিনোদন

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত বাঙালিদের মন যোগাতে সেখানে যাচ্ছেন চিত্রনায়িকা শবনম বুবলী। তবে স্বশরীরে নয়, পর্দায়। তার অভিনীত গত ঈদে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘দেয়ালের দেশ’ নামে একটি সিনেমা এবার আমেরিকায় প্রদর্শিত হবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এ সিনেমার পরিচালক মিশুক মনি। সিনেমাটি কিছুদিন আগে প্রদর্শিত হয়েছে অস্ট্রেলিয়ায়। এবার হাজির হয়েছে আমেরিকায়। শুক্রবার থেকে দেশটিতে সিনেমাটি প্রদর্শিত হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার ফেসবুকে এ সংক্রান্ত প্রেক্ষাগৃহের তালিকাসহ একটি পোস্টার শেয়ার করেছেন বুবলী। তিনি জানিয়েছেন, আমেরিকার বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের ১৫টি প্রেক্ষাগৃহে চলবে ‘দেয়ালের দেশ’।

এ প্রসঙ্গে বুবলী বলেন, ‘আমাদের সিনেমাটি এখন সীমানা ছাড়িয়ে আমেরিকায়। অস্ট্রেলিয়ার পর এবার আমেরিকায় রিলিজ হচ্ছে। এরপর কানাডা ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে মুক্তি পাবে। অর্গানিক ভালোবাসার ওজন জমতে থাকুক বুক পকেটে।’

উল্লেখ্য, সরকারি অনুদানে নির্মিত এ সিনেমার গল্পে দেখা গেছে বৈশাখ ও নহর নামের দুই তরুণ-তরুণীর ব্যতিক্রম রসায়ন।

বিনোদন

এবার শরিফুল রাজের নায়িকা হচ্ছেন পশ্চিমবঙ্গের অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখার্জি। গত সেপ্টেম্বরে নির্মাতা হিমু আকরাম তার সিনেমা ‘আলতাবানু কখনো জোছনা দেখেনির নায়িকা হিসেবে স্বস্তিকার নাম ঘোষণা করেছিলেন। কিন্তু এই অভিনেত্রীর বিপরীতে কে অভিনয় করবেন, তা জানাননি। এরপর কেটে গেছে প্রায় আট মাস। অবশেষে জানা গেল নায়কের নাম।

সিনেমাটিতে স্বস্তিকার বিপরীতে অভিনয় করবেন রাজ। তবে বিষয়টি নিয়ে এখনই কথা বলতে নারাজ নির্মাতা। আর রাজের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়া।

প্রযোজনা সংস্থার সূত্রে, স্বস্তিকার বিপরীতে শরিফুল রাজ চূড়ান্ত। ইতোমধ্যে সিনেমাটিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। এখন দিন-তারিখ দেখে শুটিংয়ে নামার অপেক্ষা।

এদিকে বহু নাটক নির্মাণ করেছেন হিমু আকবর। এবার নিজের গল্পেই প্রথম সিনেমা নির্মাণ করতে যাচ্ছেন তিনি। চিত্রনাট্য লিখেছেন হিমু আকরাম, মোহাম্মদ নাজিম উদ দৌলা ও মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন।

সৈয়দপুর, সুন্দরবন, রাজেন্দ্রপুরের শালবনে এর দৃশ্যধারণ হবে বলে জানা গেছে। তারকাবহুল এই সিনেমায় স্বস্তিকা-রাজের পাশাপাশি ইরেশ যাকের, মামুনুর রশীদ, সোহেল মণ্ডলসহ অনেকেই অভিনয় করবেন।

এর আগে শাকিব খানের বিপরীতে ‘সবার উপরে তুমি’ সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন স্বস্তিকা। সিনেমাটি নির্মাণ করেন এফআই মানিক। আলতাবানু কখনো জোছনা দেখেনি ছাড়াও স্বস্তিকা কামরুল হোসেন রিফাতের ‘ওয়ান ইলেভেন’ নামের একটি সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন।

বিনোদন

ঢাকাই সিনেমার সুপারস্টার শাকিব খানের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে যেন আলোচনার শেষ হয় না। তৃতীয় বারের জন্য বিয়ের জন্য বিয়ের পিঁড়িতে বসতে যাচ্ছেন তিনি। তার তৃতীয় বিয়ে নিয়ে চলছে নতুন গুঞ্জন।

ঢালিউড কিংয়ের বিয়ের গুঞ্জনের আগেই দুই সাবেক স্ত্রীর জন্য তার বাড়ির দরজা বন্ধের কড়া বার্তা এসেছে বলে জানা গেছে। সব ঠিকঠাক থাকলে চলতি বছরেই বিয়ে করতে যাচ্ছেন শাকিব খান।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে শাকিবের পারিবারিক সূত্র জানিয়েছিলেন পরিবারের মতেই এবার অতীত ভুলে সংসারী হবার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এরপর থেকেই ভক্তদের কৌতুহল কোথায় বসবে শাকিব খানের বিয়ের আসর? এ বিষয়েও নাকি চিন্তা করছেন পরিবারের সদস্যরা।

শোনা যাচ্ছে, দেশের মধ্যে নয়, পার্শ্ববর্তী কোনো দেশের সুন্দর কোনো লোকেশনে বা সুন্দর কোনো দ্বীপে শাকিব খানের বিয়ে অনুষ্ঠানের প্রাথমিক পরিকল্পনা হচ্ছে পরিবার থেকে।

শাকিবের এক ঘনিষ্ঠ সূত্র জানিয়েছে, পাত্রী হিসেবে যিনি শাকিবের ঘরনি হতে যাচ্ছেন তার নামও নাকি ‘শা’ দিয়ে শুরু। এখন সব কিছু চূড়ান্ত না, সেই কারণে পুরো নাম জানাতে চায় না সূত্রটি।

তবে আগামী মাসের মাঝামাঝিতে ভারত থেকে দেশে ফেরার কথা আছে শাকিবের। ফেরার পর বিয়ের অগ্রগতি সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানা যাবে।

গুঞ্জন চলছে, যুক্তরাজ্য থেকে চিকিৎসা বিষয়ে লেখাপড়া করে দেশে ফেরা এক ডাক্তার মেয়ের সঙ্গে বিয়ের আলোচনা এগোচ্ছে শাকিবের। তাই বুবলীর পাশাপাশি অপুরও শাকিবের বাড়িতে যেতে নিষেধ রয়েছে। একই সঙ্গে শাকিবের পরিবার হুঁশিয়ারি দিয়েছে, শাকিবকে নিয়ে কোনো রকম মিথ্যাচার করলেই আইনের আশ্রয় নিতে বাধ্য হবেন তারা।

বিনোদন

অভিমান ভুলে আবারও একসঙ্গে পর্দায় ফিরছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা ও তাহসান খান। ‘বাজি’ শিরোনামের সাত পর্বের ওয়েব সিরিজে দেখা যাবে তাদের।

সিরিজটি নির্মাণ করছেন ‘মাটির প্রজার দেশ’খ্যাত নির্মাতা ও প্রযোজক আরিফুর রহমান।

সিরিজটি নিয়ে নির্মাতা ও অভিনয়শিল্পীরা মুখ না খুললেও নির্মাতার ঘনিষ্ঠ সূত্রের খবর, এই সিরিজে অভিনয়ের আগে বেশ কয়েক মাসের প্রস্তুতি পর্ব সেরেছেন তাহসান-মিথিলা। এই দুই জনপ্রিয় শিল্পী ছাড়াও আরও কয়েকজন জনপ্রিয় তারকাকে দেখা যাবে সিরিজটিতে।

সূত্রটি আরও জানায়, ইতোমধ্যে সাত পর্বের সিরিজটির প্রথম ধাপের শুটিং হয়ে গেছে। একটি চার তারকা মানের হোটেলে মাস দু-এক আগে এই শুটিং হয়। পরের ধাপের শুটিংয়ের প্রস্তুতি নিচ্ছেন নির্মাতারা।

আসন্ন ঈদুল আজহায় দেশের একটি ওটিটি প্ল্যাটফর্মে সিরিজটি মুক্তি পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সিরিজটিতে একজন ক্রিকেটারের চরিত্রে অভিনয় করছেন তাহসান। আর মিথিলাকে দেখা যাবে সাংবাদিকের চরিত্রে।

তাহসান খান ও রাফিয়াত রশিদ মিথিলা দীর্ঘদিনের প্রেমের পর ২০০৭ সালের ৩ আগস্ট বিয়ে করেছিলেন। বিয়ের ১১ বছর পর ২০১৭ সালের মে মাসে আনুষ্ঠানিক বিচ্ছেদ হয় তাহসান ও মিথিলার।

২০১৯ সালের শেষ দিকে মিথিলা পশ্চিমবঙ্গের পরিচালক সৃজিত মুখার্জিকে বিয়ে করে সংসার করছেন কলকাতায়। অন্যদিকে তাহসান বিয়ে না করলেও ব্যস্ত আছেন গান ও অভিনয় নিয়ে। অবশ্য একমাত্র মেয়ে আইরা তেহরীম খানকে নিয়ে দুজনের বন্ধুত্ব এখনো অটুট। বিচ্ছেদের পরেও পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধের জন্য তারা প্রশংসিত।

বিনোদন

নতুন বছরের শুরু থেকে বিয়ের খবর দিচ্ছিলেন শোবিজ তারকারা। তবে চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি দিলেন বিচ্ছেদের খবর। বিয়ের মাত্র আড়াই বছরের মাথায় সংসার ভাঙল তার। ফের আলোচনায় মাহি। নতুন প্রেমের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে তার সম্পর্কে। তিনি আর কেউ নন, ঢালিউডের বর্তমান প্রজন্মের নায়ক জয় চোধুরী।

জানা যায়, জয় চৌধুরীর সঙ্গে মাহির সম্পর্ক বেশ ভালো। বিভিন্ন সময় দুজনের ছবি দেখা যায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এই নায়কের বাসায় অন্য নায়ক-নায়িকাদের সঙ্গে বেশ ফুরফুরে মেজাজেই আড্ডায় মাততে দেখা যায় মাহিকে।

পর্দায় তাদের একসঙ্গে দেখা যায়নি। তাহলে তাদের মধ্যে এত ভালো সম্পর্ক কিভাবে? সেই প্রশ্নেরই উত্তর দিয়েছেন এই দুই তারকা। ফাঁস করেছেন নিজেদের ‘গোপন’ সম্পর্কের কথা।

মাহি বলেন, ‘অল্প সময়েই জয়ের সঙ্গে আমার বেশ ভালো বন্ধুত্ব হয়ে গিয়েছে। ও আমার সঙ্গে কোনো সিনেমায় কাজ করেনি। আর আমার সঙ্গে যেই নায়করা কাজ করেন তাদের আমি শত্রু ভাবি। যার কারণে তাদের সঙ্গে আমার সম্পর্কটা ভালো হয় না। জয়ের সঙ্গে আমার ২০১৯ থেকেই ভালো সম্পর্ক; কিন্তু গোপন রেখেছিলাম কারণ যেকোনো জিনিস গোপন রাখলে সেটা সুন্দর থাকে।’

এদিকে মাহির সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়ে জয় বলেন, ‘খোলামেলা বিষয়টা আসলে সবাই ভালোভাবে নেন না। গোপন থাকলে বিষয়টার মধ্যে একটা পবিত্রতা থাকে। মাহির সঙ্গে আমার বন্ধুত্ব অল্প দিনের হলেও আমাদের সম্পর্কের মধ্যে গভীরতা অনেক।’

অনেকদিন ধরেই চলচ্চিত্র থেকে দূরে ছিলেন মাহি। তবে এবারের ঈদে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘রাজকুমার’ সিনেমায় শাকিব খানের মায়ের চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকদের চমকে দিয়েছেন মাহিয়া মাহি। অভিনেত্রীর অভিনয় প্রশংসিত হয়েছে দর্শকমহলে।