খেলাধুলা

বৃষ্টির কারণে ম্যাচ প্রায় দুই ঘণ্টা দেরিতে শুরু হয়। খেলার মধ্যে আসে দুই বার বৃষ্টি। বৃষ্টি শেষে আবার উঠল রোদ। তবে এবার আর মাঠে ফেরা হলো না ক্রিকেটারদের। দুই অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ ও নিকোলাস পুরানের সঙ্গে কথা বলে ম‍্যাচের ইতি টেনে দিলেন দুই আম্পায়ার!

ভেজা মাঠ ও বৃষ্টির জন‍্য নির্ধারিত সময়ের সোয়া এক ঘণ্টা পর খেলা শুরু হয়। ম‍্যাচের দৈর্ঘ‍্য কমে হয় ১৬। বাংলাদেশ ইনিংসে প্রথম দফায় বৃষ্টিতে ম‍্যাচের দৈর্ঘ‍্য কমে ২ ওভার।

তবে শেষ পর্যন্ত ১৪ ওভার খেলতে পারেনি সফরকারীরা। ১৩ ওভার শেষে বৃষ্টি নামলে তাদের ইনিংস শেষ হয় সেখানেই। টাইগারদের সংগ্রহ ছিল ৮ ইউকেটে ১০৫ রান।

তখনও বোঝা যায়নি, ম‍্যাচই শেষ হতে যাচ্ছে এখানে। বাংলাদেশ ফিল্ডিং নামার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। তবে এর আগেই মাহমুদউল্লাহ ও পুরানের সঙ্গে কথা বলে ম‍্যাচের ইতি টেনে দেন দুই আম্পায়ার।

এর আগে প্রথম ৬ ওভারে ২ উইকেটে ৫৬ রানের দৃঢ় ভিতের উপর দাঁড়ানো বাংলাদেশ পারেনি ঠিকভাবে নিজেদের ইনিংস এগিয়ে নিতে। বরং এক পর্যায়ে ২১ রানের মধ‍্যে ৫ উইকেট হারিয়ে ভীষণ বিপদে পড়ে যায় তারা। সেখান থেকে নুরুল হাসান সোহানের ক‍্যামিও ইনিংসে একশ ছাড়ায় বাংলাদেশের রান।

সেটা নিয়ে কতটা লড়াই করা সম্ভব ছিল, সেটা জানতে দিল না বৃষ্টি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ: ১৩ ওভারে ১০৫/৮ (মুনিম ২, এনামুল ১৬, সাকিব ২৯, লিটন ৯, মাহমুদউল্লাহ ৮, আফিফ ০, সোহান ২৫, মেহেদি ১, নাসুম ৭*, শরিফুল ০*; আকিল ৩-০-২২-১, শেফার্ড ৩-০-২১-৩, ম‍্যাককয় ২-০-১৬-১, স্মিথ ২-০-২২-১, ওয়ালশ জুনিয়র ৩-০-২৪-২)

রাজনীতি

‘বাংলাদেশ গত এক দশকে কৃষি ক্ষেত্রে স্বনির্ভরতা ও উল্লেখযোগ্য সাফল্য অর্জন করেছে এবং বিভিন্ন শস্য ও শাক-সবজি উৎপাদনে বিশ্বের শীর্ষ ১০ দেশের তালিকায় স্থান পেয়েছে।’

নেদারল্যান্ডসের হ্যাগে অনুষ্ঠিত ৬ মাসব্যাপি ‘ফ্লোরিয়াডে এক্সপো ২০২২’তে যোগদান করতে গিয়ে শুক্রবার বাংলাদেশ ভবনে গবেষণা বিষয়ক ওয়াগেনিংগেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসিডেন্ট ড. সুকে হিমোভারার সঙ্গে বাংলাদেশের কৃষি রূপান্তর বিষয়ে আলোচনাকালে কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক এ কথা জানান।

শনিবার ঢাকায় প্রাপ্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ওয়াগেনিংগেন বর্তমানে বিশ্বের শীর্ষ কৃষি গবেষণা বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে স্বীকৃত। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ কৃষিপণ্যের জাত উন্নয়ন ও উন্নততর কৃষি-প্রযুক্তি উদ্ভাবনের জন্য ওয়াগেনিংগেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে নিয়মিতভাবে প্রায়োগিক গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করে।

বৈঠকে নেদারল্যান্ডসে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মু. রিয়াজ হামিদুল্লাহ বাংলাদেশের কৃষি গবেষণামূলক বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে ওয়াগেনিংগেন বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌথ গবেষণামূলক প্রকল্প চালুর বিষয়টি উত্থাপন করলে ওয়াগেনিংগেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসিডেন্ট প্রস্তাবকে স্বাগত জানান।

কৃষিমন্ত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসিডেন্টকে বাংলাদেশ ডেল্টা প্ল্যানের কৃষি ক্ষেত্রকে বৃহত্তর অবস্থানে তুলে ধরার বিষয়ে আলোচনা করেন এবং বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান।

ড. সুকেকে ওয়াগেনিংগেন বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের জন্য বাংলাদেশের পক্ষ থেকে তাকে অভিনন্দন জানান কৃষিমন্ত্রী।

ড. রাজ্জাক বাংলাদেশের কৃষি ক্ষেত্রে উন্নত প্রযুক্তি ও গবেষণালব্ধ ফলাফল প্রয়োগের মাধ্যমে বিভিন্ন শস্য ও পণ্যের উৎপাদন বৃদ্ধি, শস্য বহুমুখীকরণ, কৃষিজাত পণ্য সংরক্ষণ ও আধুনিক উপায়ে বাজারজাতকরণ ও জলবায়ু পরিবর্তন জনিত অভিযোজন সংক্রান্ত প্রায়োগিক গবেষণার বিষয়ে আলোচনা করেন।

রাজনীতি

তথ্যও সম্প্রচারমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, কপর্দকহীন এবং উদভ্রান্তের মতো কথা বলা বিএনপির মজ্জাগত স্বভাব হয়ে গেছে। পদ্মা সেতু হয়ে যাওয়ায় সারাদেশের মানুষ যখন উল্লসিত এবং পদ্মা সেতু নিয়ে যারা ষড়যন্ত্র করেছে তাদেরকে মানুষ ধিক্কার দিচ্ছে, তখন তারা খেই হারিয়ে নানা ধরনের উল্টাপাল্টা বক্তব্য দিচ্ছে।

মন্ত্রী আজ দুপুরে তার চট্টগ্রাম নগরীর বাসায় সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন। পদ্মা সেতু নিয়ে সংসদে গান করার পরিবর্তে বন্যায় দুর্গত মানুষের সহায়তায় যেন আওয়ামী লীগ ঝাঁপিয়ে পড়ে – বিএনপি নেতা রিজভী আহমেদের এমন বক্তব্যের বিষয়ে ড. হাছান বলেন, ‘পদ্মা সেতু উদ্বোধন হবার পর রিজভী সাহেব কয়েকদিন নিখোঁজ ছিলেন, হঠাৎ বের হয়ে তিনি এখন নানা ধরনের কথা বলছেন। বন্যা হবার পর সেখানে বিএনপির কেউ যায়নি এবং বিএনপি কপর্দকহীনের মতো বলেছে, ত্রাণ দেয়া তাদের দায়িত্ব-কর্তব্য নয় । আমরা যখন বিরোধী দলে ছিলাম, তখন বন্যা, জলোচ্ছ্বাসসহ বিভিন্ন দুর্যোগ দুর্বিপাকে সবসময় দুর্গতদের পাশে দাঁড়িয়েছি। আমাদের নেত্রী ছুটে গেছেন, কিন্তু তারা এবার যায়নি। তাছাড়া, সংসদে এমপি মমতাজ বেগম তার বক্তব্যের শেষাংশে বিএনপির সংসদীয় দলের নেতা হারুনুর রশীদের অনুরোধেই আরেকটি গান গেয়েছিলেন। সেটি মনে হয় রিজভী সাহেব জানেন না।’

বাংলাদেশে থেকে যারা পদ্মাসেতুর বিরোধিতা করেছে, তাদের বিরুদ্ধে সরকার আইনানুগ কোনো ব্যবস্থা নেবে কিনা এ প্রশ্নে মন্ত্রী হাছান বলেন, ‘হাইকোর্টের একটি রায়ে পদ্মা সেতুর বিরুদ্ধে যারা ষড়যন্ত্র করেছে তাদের খুঁজে বের করতে কমিশন গঠনের কথা বলা হয়েছে। রায়টি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে কি করা যায় সরকার বিবেচনা করবে।’

আওয়ামী লীগের গাফিলতিতে দেশে করোনা বাড়ছে, বিএনপির খন্দকার মোশাররফ হোসেনের এ বক্তব্যের জবাবে তথ্যমন্ত্রী প্রশ্ন রাখেন, ‘সারা পৃথিবীতে তাহলে করোনা কি জন্য বাড়ছে? ভারতে বিজেপি’র কারণে বাড়ছে কি না? বন্যা হবার পরও বিএনপি বলেছে, সরকারের কারণে বন্যা হয়েছে তবে কি আসাম এবং মেঘালয়ে দুই হাজার এবং সিলেটে একদিনে হাজার মিলিমিটার বৃষ্টিও আওয়ামী লীগের কারণে হয়েছে ? ১২২ বছরের মধ্যে এবার সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে, সে জন্যই বন্যা এবং বন্যার শুরু থেকে আমাদের সরকার ও দল সর্বাগ্রে ঝাঁপিয়ে পড়েছে, বন্যার পানিতে ডুবে এবং সাপের কামড়ে কয়েকজন মারা গেছে সেটা সত্য, কিন্তু অনাহারে কোন মানুষ মারা যায়নি।’

এছাড়াও এদিন দুপুরে রাজধানীর বাংলা একাডেমিতে ব্রডকাস্ট জার্নালিস্ট সেন্টার-বিজেসি’র তৃতীয় সম্প্রচার সম্মেলনে অনলাইনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী বলেন, দেশের কোনো টিভি চ্যানেল একসাথে একাধিক বিদেশি সিরিয়াল সম্প্রচার করতে পারবে না। দেশের ইতিহাস-ঐতিহ্য -সংস্কৃতি- কৃষ্টি রক্ষায় এ সিদ্ধান্ত মন্ত্রণালয় থেকে জানিয়ে দেয়া হয়েছে। ঢাকা প্রান্তে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। তথ্য ও সম্প্রচার সচিব মো. মকবুল হোসেন বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন।

বিজেসির অন্যতম ট্রাস্টি সৈয়দ ইশতিয়াক রেজার সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অধিবেশনে আলোচনা করেন বিজেসি সভাপতি রেজওয়ানুল হক রাজা, সদস্য সচিব শাকিল আহমেদ, পরিচালকদের মধ্যে রাশেদ আহমেদ, নূর উস-সাফা জুলহাজ, বিএফইউজে সভাপতি ওমর ফারুক, সাবেক সভাপতি মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, ডিইউজে সভাপতি সোহেল হায়দার চৌধুরী, ডিআরইউ সভাপতি নজরুল ইসলাম মিঠু প্রমুখ।

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, গণমাধ্যম দেশের অন্যতম পথপ্রদর্শক, যা কোনভাবেই মালিকপক্ষের স্বার্থরক্ষায় ব্যবহৃত হওয়া উচিত নয়। একইসাথে মন্ত্রী বলেন, গণমাধ্যমকর্মী আইনের পরিবর্তন-পরিবর্ধনে সাংবাদিকদের সাথে সরকার একমত এবং সাংবাদিকদের শীর্ষ সংগঠনের লিখিত প্রস্তাবনার অপেক্ষায় রয়েছে। সুতরাং এ নিয়ে বিতর্কের কোনো অবকাশ নেই। হাছান মাহমুদ এসময় দেশের গণমাধ্যমকে সমৃদ্ধতর করতে বিজেসির ভূমিকা জোরদারে গুরুত্ব দেন। তথ্যসচিব এবং আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ সম্প্রচার সম্মেলনের সাফল্য কামনা করেন।

জাতীয়

গত ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আরও ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু দাঁড়াল ২৯ হাজার ১৬০ জনে।

এ সময়ে ১ হাজার ১০৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে মোট আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৯ লাখ ৭৬ হাজার ৭৮৭ জনে।

আজ শনিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনা বিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, ২৪ ঘন্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ২৩৩ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৯ লাখ ৭ হাজার ৯৯০ জন। ২৪ ঘন্টায় ৮ হাজার ১৭৭টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় ৮ হাজার ৩৫৭টি নমুনা। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ২২ শতাংশ। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৭৬ শতাংশ।

গত ২৪ ঘন্টায় মারা যাওয়াদের ৩ জন ঢাকা বিভাগের, ২ জন চট্টগ্রাম বিভাগের ও একজন ময়মনসিংহ বিভাগের। তাদের মধ্যে তিনজন পুরুষ ও তিনজন নারী।

২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম ৩ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ওই বছরের ১৮ মার্চ দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।

বিনোদন

ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে মাত্র ৩০ বছর বয়সেই না ফেরার দেশে পাড়ি জমালেন ভারতের অসমীয়া সিনেমার অভিনেতা কিশোর দাস। শনিবার (০১ জুলাই) চেন্নাইয়ের একটি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর, ব্লাড ক্যানসারের মতো জটিল রোগে আক্রান্ত ছিলেন কিশোর। সম্প্রতি করোনায়ও আক্রান্ত হয়েছিলেন এই অভিনেতা। এরপরই তার শারিরীক পরিস্থিতি অবনতি হয়।

এর আগে আসামে বেশ কিছুদিন চিকিৎসা চলার পর কিশোরকে মুম্বাইয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। এরপর তাকে চেন্নাইয়ে স্থানান্তরিত করা হয়। শনিবার চেন্নাইয়ের হাসপাতালে জীবনযুদ্ধে হেরে গেলেন তিনি। তার মৃত্যুর খবরে শোকস্তব্ধ আসামের শোবিজ অঙ্গন।

ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়াশোনা করা কিশোরের অভিনয়ই ছিল প্রথম ভালোবাসা। অল্প বয়সেই অসমিয়া সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে পাকা জায়গা করে নিয়েছিলেন তিনি। ‘বৃন্দাবন’, ‘প্রেম বন্ধকি’, ‘দাদা তুমি দুষ্টু বড়’সহ একাধিক সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি।

এছাড়াও ৩০০ টিরও বেশি মিউজিক ভিডিওতে দেখা গেছে তাকে। টেলিভিশনের পর্দাতেও কাজ করেছেন কিশোর। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য সিরিয়ালের মধ্যে রয়েছে ‘বিধাতা ও বন্ধু’।

অর্থনীতি

দেশের সর্ববৃহৎ স্থাপনা পদ্মা সেতুতে টোল আদায়ের রেকর্ড হয়েছে। একদিনে ৩ কোটি ১৬ লাখ টাকারও বেশি টোল আদায় হয়েছে।

শুক্রবার এই টোল আদায় করা হয়। ২৬ জুন পদ্মা সেতুতে যান চলাচল চালুর পর এটাই টোল আদায়ের রেকর্ড। এদিন সেতু দিয়ে যানবাহন পারাপার করেছে ২৬ হাজার ৩৯৮টি।

এর আগে ২৬ জুন চালুর পর ১ দিনে ৬১ হাজারের বেশি যানবাহন চলাচল করেছিল। আর টোল আদায় হয়েছিল প্রায় পৌনে তিন কোটি টাকা। তবে ওই দিন পার হওয়া যানবাহনের ৭৫ শতাংশ ছিল মোটরসাইকেল। ২৭ জুন থেকে সেতু দিয়ে মোটরসাইকেল পারাপার বন্ধ করে দেওয়া হয়।

এদিকে পদ্মা সেতুর দুই প্রান্তে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মহাসড়কে শুক্রবার থেকে টোল আদায় শুরু হয়েছে। সড়ক ও জনপথ সূত্র জানায়, প্রথম দিনে ৬৯ লাখ ৮১ হাজার ৮৮০ টাকা টোল আদায় হয়েছে। এর মধ্যে যানবাহন পারাপার করেছে মোট ৪১ হাজার ৭১৪টি।

এর মধ্য ধলেশ্বরী সেতুর কাছের টোল প্লাজা দিয়ে যানবাহন পারাপার হয়েছে ২৬ হাজার ৬৪। টোল আদায় হয়েছে ৪৫ লাখ ৭৭ হাজার ২৪০ টাকা। আর ভাঙা দিয়ে যানবাহন পারাপার করেছে ১৫ হাজার ৬৫০টি। টোল আদায় করা হয়েছে ২৪ লাখ ৪ হাজার ৬৪০ টাকা।

পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্ত দিয়ে যানবাহন পারাপার হয়েছে ১৩ হাজার ৮০১টি। টোল আদায় হয়েছে ১ কোটি ৬৫ লাখ ৪২ হাজার ১০০ টাকা। জাজিরা দিয়ে যানবাহন পারাপার হয়েছে ১২ হাজার ৫৯৭টি। টোল আদায় করা হয়েছে ১ কোটি ৫১ লাখ ১১ হাজার ১০০ টাকা।

আন্তর্জাতিক

চীনে টাইফুন আঘাত হেনেছে। টাইফুনের প্রভাবে দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় উপকূলে ব্যাপক ঝড় ও বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। দেশটির সবচেয়ে জনবহুল গুয়াংডং প্রদেশসহ ওই অঞ্চলে রেকর্ড বৃষ্টিপাত এবং দুর্যোগের উচ্চ ঝুঁকির বিষয়ে সতর্ক করে দিয়েছেন দেশটির আবহাওয়াবিদরা।

চীনের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় এলাকার দিকে ঘণ্টায় ১৫ থেকে ২০ কিলোমিটার গতিতে ধেয়ে যাওয়া এই টাইফুনের নাম হিবিস্কাস ফুলের থাই নাম অনুযায়ী ‘চাবা’ রাখা হয়েছে।

শনিবার সকালের দিকে গুয়াংডং প্রদেশের মাওমিং শহরে চাবার লেজ আঘাত হানে বলে চীনের জাতীয় আবহাওয়া কেন্দ্রের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে। খবর আলজাজিরার।

শনিবার উত্তাল দক্ষিণ চীন সাগরে ৩০ জন আরোহীবাহী একটি ইঞ্জিনিয়ারিং জাহাজ ভেঙে দুই টুকরা হয়ে গেছে। টাইফুন চাবার প্রভাবে ভেঙে যাওয়া এই জাহাজের দুই ডজনের বেশি আরোহী এখনো নিখোঁজ রয়েছেন বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

হংকং কর্তৃপক্ষের সরবরাহ করা উদ্ধারকাজের নাটকীয় ফুটেজে দেখা গেছে, একজন ক্রুকে হেলিকপ্টারে করে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। এ সময় প্রায় আধা-নিমজ্জিত জাহাজের ডেকের ওপর সাগরের ঢেউ আছড়ে পড়ে।

সরকারি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, প্রথম হেলিকপ্টার সেখানে পৌঁছার আগেই অন্য ক্রু সদস্যরা ঢেউয়ের তোড়ে ভেসে গেছেন।

আবহাওয়া কেন্দ্রের প্রধান কর্মকর্তা গাও শুয়ানঝু বলেছেন, তীব্রতা মাঝারি মাত্রার হলেও সময়ের সাথে সাথে চাবা শক্তি হারিয়ে ফেলবে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। তবে এই টাইফুনের প্রভাবে অত্যন্ত ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে। এমনকি ক্রমবর্ধমান বৃষ্টিপাতের রেকর্ড ভেঙে যেতে পারে।

তিনি আরও বলেন, এই অঞ্চলের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া প্রচুর মৌসুমী জলীয় বাষ্প থেকে তীব্র বর্ষণ হতে পারে। কিছু কিছু এলাকায় সর্বোচ্চ ৬০০ মিলিমিটার (২৪ ইঞ্চি) পর্যন্ত বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাষ রয়েছে।

চীনে টাইফুন সাধারণত স্থায়ী হয় গুয়াংডংয়ের পশ্চিমাঞ্চলে। এই এলাকা এবং গুয়াংজির স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলের পূর্বে ও দ্বীপ প্রদেশ হাইনানে বৃষ্টিপাত এবং ঝড়ের কারণে ভূমিধস, শহরে জলাবদ্ধতা এবং বন্যা হয় বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া কর্মকর্তা গাও।

তিনি বলেছেন, হাইনান প্রদেশে শনিবার জরুরি মোকাবিলার স্তর দুইয়ে উন্নীত করা হয়েছে। এই দ্বীপজুড়ে ট্রেন চলাচল স্থগিত এবং হাইকু ও সানইয়া শহরের মধ্যে চলাচলকারী ৪ শতাধিক বিমানের ফ্লাইটের উড্ডয়ন এবং অবতরণ বাতিল করা হয়েছে।

চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিভিশনের খবরে বলা হয়েছে, চাবার প্রভাবে ঝড় এবং বৃষ্টিপাতের কারণে ম্যাকাও দ্বীপপুঞ্জে একজন আহত হয়েছেন।

হংকং থেকে প্রায় ৩০০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে নিখোঁজ ক্রুদের সন্ধানে উদ্ধার অভিযান শুরু হয়েছে। এই অভিযানে ইতোমধ্যে তিনজন ক্রু সদস্যকে উদ্ধার করা হয়েছে। হংকংয়ে সরকারি পরিবহন সংস্থা বলেছে, স্থানীয় সময় বিকেল ৩টার দিকে ওই তিন ক্রুকে জীবিত অবস্থায় পাওয়া গেছে এবং চিকিৎসার জন্য তাদের হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

আন্তর্জাতিক

রাশিয়ার চেচনিয়া প্রদেশের নেতা রমজান কাদিরভ শনিবার দাবি করেছেন বিচ্ছিন্নতাবাদী মিলিশিয়া এবং রুশ সেনারা ইউক্রেনের লিসিচানস্ক শহর অবরুদ্ধ করেছে।

এর আগে রুশপন্থি একজন কর্মকর্তাও লিসিচান্সক ঘিরে ফেলার দাবি করেন।

তবে ইউক্রেনের সেনাবাহিনী এটি পুরোপুরি অস্বীকার করেছে।

রুসলান মুজায়াতচুক নামে ইউক্রেনের ন্যাশনাল গার্ডের একজন মুখপাত্র টিভিতে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন, লিসিচানস্কে হামলা বেড়েছে। কিন্তু সৌভাগ্যক্রমে শহরটি ঘিরে ফেলা হয়নি এবং লিসিচানস্ক ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণে আছে।

তবে রমজান কাদিরভ দৃঢ় কণ্ঠে বলেছেন, লিসিচানস্ক ঘিরে ফেলা হয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে সেখানে বড় অভিযান শুরু করা হবে।

এ ব্যাপারে টেলিগ্রামে কাদিরভ বলেছেন, ফাঁদ বন্ধ হয়ে গেছে। মিত্র সেনারা লিসিচানস্ককে পুরোপুরি ঘিরে ফেলেছে। বলা যায় শহরটিতে দ্রুত সময়ের মধ্যে বড় ধরনের অভিযান শুরু হবে। শত্রুদের (ইউক্রেনীয় সেনাদের) এখন যাওয়ার কোনো জায়গা নেই কারণ শহরের প্রবেশ ও বাহির হওয়ার সব পথ অবরুদ্ধ করা হয়েছে।

এদিকে এর আগে বলা হয়েছিল লিসিচানস্কে ইউক্রেনের আঞ্চলিক প্রতিরক্ষা বাহিনীর ২ হাজার সদস্য আছে, যারা বিদেশী ভাড়াটে যোদ্ধাদের রক্ষা করছিল।

শুক্রবার রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে দাবি করা হয় লুহানেস্ক পিপলস রিপাবলিকের সেনা এবং রুশ সেনার লিসিচানস্কের তেল শোধনাগার, মাত্রোস্কায়া খনি এবং জেলটিন প্ল্যান্টটি দখল করেছে।

জাতীয়

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মুকুল বোস আর নেই ।

ভারতের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার মারা গেছেন বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া।

মুকুল বোসের বয়স হয়েছিল ৬৮ বছর। তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন।

দীর্ঘ দিন আওয়ামী লীগে যুক্ত মুকুল বোস এক যুগ আগে জরুরি অবস্থার সময় ‘সংস্কারপন্থি’ হিসেবে চিহ্নিত হওয়ার পর কিছু দিন দলে অপাঙক্তেয় ছিলেন।

১৬ মে ঢাকার রায়েরবাজারের বাসায় গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন মুকুল বোস। তাৎক্ষণিকভাবে মোহাম্মদপুরের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। পরদিন সেখান থেকে স্কয়ার হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে ভর্তি করা হয় তাকে। তার অবস্থার আরও অবনতি হলে লাইফ সাপোর্ট দেওয়া হয় ৷

এর পরে ভারতে চেন্নাইয়ের অ্যাপোলো হাসপাতালে নেওয়া হয় মুকুল বোসকে। সেখানেই শনিবার ভোরে তার মৃত্যু হয় বলে জানান বিপ্লব বড়ুয়া।

আওয়ামী লীগের উপদপ্তর সম্পাদক সায়েম খান বলেন, “দীর্ঘ দিন ধরে তিনি (মুকুল) হার্ট, লিভার ও কিডনির জটিলতায় ভুগছিলেন।”

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা ও সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বীর মুক্তিযোদ্ধা মুকুল বোসের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন।

২০০৭ সালে জরুরি অবস্থার সময় ওবায়দুল কাদের, সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের সঙ্গে মুকুল বোসও ছিলেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

তখন মুকুল সংস্কারপন্থি হিসেবে চিহ্নিত হওয়ার পর কর্মীদের রোষের মুখে পড়েন। সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জলিল ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের কারাগারে যাওয়ার পর তখন আরেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে এসেছিলেন।

জরুরি অবস্থার অবসানের পর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় ফিরলে ২০০৯ সালের সম্মেলনে বাদ পড়েন মুকুল বোস। ২০১২ সালের সম্মেলনেও ফিরতে পারেননি এই নেতা।

সর্বশেষ ২০১৬ সালে দলের ২০তম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হলে এর প্রায় আড়াই মাস পর ২০১৭ সালের ৮ জানুয়ারি তাকে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য করেন সভাপতি শেখ হাসিনা।

এর পর ওই বছরের ৩১ জানুয়ারি মুকুল বোসকে দলের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মনোনীত করার কথা জানানো হয়।

রাজনীতি

থাইল্যান্ড থেকে চিকিৎসা নিয়ে ছয় মাস পর দেশে ফেরা বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ তার দল জাতীয় পার্টির নেতাদের নিয়ে আক্ষেপ প্রকাশ করেছেন।

তিনি বলেছেন, অসুস্থতার এই সময়ে দলীয় নেতাদের কেউ তার খবর নেননি। আর প্রতিষ্ঠাতা এইচ এম এরশাদের মৃত্যুর পর দলটিও এলোমেলো হয়ে পড়েছে।

সংসদে বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এখন জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্ঠপোষকের পদে আছেন। দলটির চেয়ারম্যানের পদে আছেন জি এম কাদের, তিনি সংসদে বিরোধীদলীয় উপনেতা।

তিন বছর আগে জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা এরশাদের মৃত্যুর পর দলে কর্তৃত্ব নিয়ে দেবর-ভাবি কাদের ও রওশনের বিরোধ দেখা দিয়েছিল, পরে দলের জ্যেষ্ঠ নেতাদের হস্তক্ষেপে সমঝোতা হয়।

ফুসফুসের জটিলতায় আক্রান্ত হয়ে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) টানা ৮৪ দিন থাকার পর গত বছর থাইল্যান্ড গিয়েছিলেন ৮০ বছর বয়সী রওশন।

দেশে ফিরেছেন রওশন

ছয় মাস পর দেশে ফিরে বৃহস্পতিবার সংসদ অধিবেশনে যোগ দেওয়ার পর শনিবার ঢাকার ওয়েস্টিন হোটেলে জাতীয় পার্টির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় আসেন তিনি।

এই সভায় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদেরসহ দলের শীর্ষ নেতাদের কেউ ছিল না।

রওশন বলেন, “দীর্ঘ ছয় মাস আমি থাইল্যান্ডের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলাম। পার্টির কেউ খোঁজ নেয়নি আমার। আমি সবার খোঁজ নিয়েছি।”

তবে হালে দল থেকে যারা বহিষ্কৃত হয়েছেন, তারা খোঁজ নিয়েছেন বলে জানান জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্ঠপোষক।

“যাদেরকে দল থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে, তারাই আমার নিয়মিত খোঁজ রেখেছেন। মসজিদ, মাজারসহ বিভিন্ন উপাসনালয়ে দোয়া প্রার্থনা করেছে।”

দল পরিচালনায় স্বামী এরশাদের অনুপস্থিতির অভাবে অনুভব করছেন বলে জানান রওশন।

“আজ পল্লীবন্ধু এরশাদ নেই। উনি থাকলে পার্টি অন্যরকম হতো। উনি নেই, তাই জাতীয় পার্টি আজ এলোমেলো হয়ে গেছে।”

দেশে ফেরার পর ছেলের সঙ্গে রওশন এরশাদ।দেশে ফেরার পর ছেলের সঙ্গে রওশন এরশাদ।

দলছাড়া যারা হয়েছেন, তাদের ফেরত আনার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, “যাদের দল থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে, তাদেরকে ফিরিয়ে নিতে হবে। যারা চলে গেছে, তাদেরকেও ফিরিয়ে আনতে হবে। নতুবা আমরা অনেক পিছিয়ে যাব।”

“নতুন প্রজন্মকে দলে আনতে হবে। দলকে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির সমকক্ষ বানাতে হবে। নতুবা রাজনীতির টিকে থাকতে পারব না।”

এই বয়সেও দলকে সময় দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে রওশন বলেন, “পার্টি শক্তিশালী করার প্রয়োজনে যা যা করার দরকার তাই করব। এরশাদ তিলে তিলে এই দলটা গড়েছেন। সকলকে নিয়েই কাজ করতে হবে।

“বিমানবন্দরে আমি আসার দিন এত মানুষ আমাকে যে অভ্যর্থনা জানিয়েছে, তা দেখে আমার দু’চোখে জল এসে এসে গেছে।”

মতবিনিময় সভায় জাতীয় পার্টির সাবেক সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও এরশাদ ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান কাজী মামুনুর রশীদ বলেন, “আমাদের আজ খুব দুঃসময় চলছে। আপনি (রওশন) যখন অসুস্থ, তখন আপনার রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল করলে আমাকে বাধা দেওয়া হয়, প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা হয়। আপনি যখন সংকটাপন্ন অবস্থায় থাইল্যান্ড যান, তারপরের দিন তারা কক্সবাজারে দলবেঁধে আমোদ ফুর্তি করেছে।”

রওশন এরশাদের জীবদ্দশায় তার ছেলে সাদ এরশাদকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান করার দাবি জানান মামুন।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির সাবেক সংসদ সদস্য নূরুল ইসলাম মিলন,দেলোয়ার হোসেন খান, জিয়াউল হক মৃধা, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন রাজু।

রাহগীর আল মাহি (সাদ এরশাদ), রওশন এরশাদের রাজনৈতিক সচিব গোলাম মসিহ, জাতীয় পার্টির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য হাবিবুর রহমান হবি, হাবিবুল্লাহ বেলালী, সভাপতমিণ্ডলীর সাবেক সদস্য এমএ সাত্তার সভায় উপস্থিত ছিলেন।